কীর্তিমানদের বই এবারও উপেক্ষিত থাকবে?

189
কয়েক শ কোটি টাকার বই ক্রয়: এবারও কি উপেক্ষিত থাকবে কীর্তিমানদের বই?
কয়েক শ কোটি টাকার বই ক্রয়: এবারও কি উপেক্ষিত থাকবে কীর্তিমানদের বই?

নিজস্ব প্রতিবেদক: শিক্ষার্থীদের বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে লেখক ও প্রকাশকদের থেকে নমুনা আহবান করছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। সূত্রমতে, সেকেন্ডারি এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের (এসইডিপি) আওতায় শিক্ষার্থীদের জন্য কয়েক শ কোটি টাকার বই কিনতে যাচ্ছে সরকার। প্রশ্ন উঠেছে, পূর্ববর্তী সেকায়েপ প্রজেক্টের মতো এই প্রজেক্টেও কি উপেক্ষিত থেকে যাবেন বাংলা সাহিত্যের কীর্তিমান কবি-সাহিত্যিকরা!

২০১৬ সালে সেকেন্ডারি এডুকেশন কোয়ালিটি অ্যান্ড অ্যাকসেস এনহান্সমেন্ট প্রজেক্ট (সেকায়েপ) নামে এক প্রজেক্টের মাধ্যমেও কয়েক শ কোটি টাকার বই কিনে নেয় সরকার।

এই প্রজেক্টে ২১১ জন লেখকের ৩১২টি বই নির্বাচিত হলেও এই ২২১ জনের মাঝে ঠাঁই মেলেনি জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম, জীবনানন্দ দাশ এবং শামসুর রাহমানের।

এই প্রজেক্টে সর্বাধিক ৬টি করে বই নির্বাচিত হয়েছে বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়, আলী ইমাম ও কাইজার চৌধুরীর। এদের পরেই রবীন্দ্রনাথের অবস্থান (৫টি বই)। ৪টি করে বই নির্বাচিত হয়েছে ১০ জন লেখকের। যাদের মধ্যে রয়েছেন বিপ্রদাশ বড়ুয়া, মোশতাক আহমেদ অন্যতম।

উল্লেখ্য, গণগ্রন্থাগার ও জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্র প্রতি বছর লেখক ও প্রকাশকদের থেকে কিছু নতুন বই কিনে নেয়। তবে তা খুবই সামান্য, মাত্র ৩০-৭০ কপি করে। কিন্তু সেকায়েপের এই প্রজেক্টে নির্বাচিত প্রতিটি বই ৪টি ধাপে মোট ১০-১২ হাজার কপি করে কেনা হয়।

ধারণা করা হচ্ছে, বর্তমান এসইডিপির প্রজেক্টে নির্বাচিত প্রতিটি কপি সেকায়েপে নির্বাচিত বইয়ের তুলনায় দুই-তিনগুণ বেশি কেনা হবে। কেননা, ‘স্ট্রেংদেনিং রিডিং হ্যাবিট অ্যান্ড রিডিং স্কিলস অ্যামাং সেকেন্ডারি স্টুডেন্টস’ শীর্ষক এই স্কিমের আওতায় দেশের প্রায় সব কটি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য কর্মসূচির বই ও পুরস্কারের বই কেনা হবে।

এ বছরের ২৭ মে জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত এক বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে এই প্রজেক্টের জন্য বই নির্বাচনের লক্ষ্যে লেখক ও প্রকাশকদের থেকে নমুনা আহ্বান করা হয়।

সেকায়েপের তালিকায় বই না থাকলেও এসইডিপির এই প্রজেক্ট থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন নজরুল ইসলামের নাতনি খিলখিল কাজী ও শামসুর রাহমানের পুত্রবধূ টিয়া রাহমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here